1 March- 2021, 6:52 am ।। ১৬ই ফাল্গুন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বেতাগী পি,আই,ও’দায়িত্বে অবহেলা।।নিন্মমানের নির্মান সামগ্রী দিয়ে ত্রানের ভবন নির্মানের কাজ

শফিকুল ইসলাম ইরান, স্টাফ রিপোর্টারঃ

বরগুনার বেতাগীতে ভবন নির্মানের কাজে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটে গতকাল বেলা দুই ঘটিকার সময়। উল্লেখ্য বেতাগী উপজেলার হোসনাবাদে ডা.আছমত আলী কলেজ এর নতুন ভবনের নির্মান কাজে এমন অভিযোগ উঠে এসেছে। ভবন তদরকী কমিটির দেওয়া তথ্যনুযায়ী জানা যায় ,বিগত কয়েক মাস আগে বাংলাদেশ ত্রান মন্ত্রনালয়ের অর্থায়নে ২ কোটি ১২ লক্ষ ৭৬ হাজার টাকার বরাদ্দে বেতাগী উপজেলার হোসনাবাদ ইউনিয়নে একটি তিন তলা বিশিষ্ট ভবন টেন্ডার দেওয়া হয়। বরিশালের “মের্সাস আমির কনস্ট্রাকসন” নামক একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান উক্ত ভবনের কাজের দায়িত্ব নেন। তারই ধারাবাহিকতায় গত ০৬ জুলাই রোজ শুক্রবার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সাব ঠিকাদার পটুয়াখালী জেলার বাসিন্দা মোঃ রিপন হাওলাদারের তদরকীতে ভবনের নির্মান কাজ শুরু করা হয়। ভবনের পাইল বসানোর মধ্য দিয়ে কাজের অগ্রযাত্রা শুরু হয়। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ নিন্মমানের পাথুরে খোয়া ও কাদা মিশ্রিত সিলিকা বালুর সাথে লোকাল বালুর সংমিশ্রনে চলছে ভবন তৈরীর কাজ। একই সাথে ডা.আছমত আলী কলেজের প্রতিষ্ঠাতা জনাব মোঃ মাসুদ আলম বাবুল ও অধ্যক্ষ জনাব আবদুল হক জুয়েল বলেন এসব ব্যাপারে উপজেলার পি,আই,ও কোন খেয়াল দিচ্ছে না, ফোনে যোগাযোগ করলে বলেন নির্মান সামগ্রীর গুনাগতমান ভলো এমনটা বলে ব্যক্তিদ্বয় অভিযোগ করেন ।তারা জানান কাজ শুরুর পূর্বেই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে ৫০ লক্ষ টাকা বিল প্রদান করা হয়েছে।
সরেজমিন পরিদর্শন করলে সত্যতার প্রমান মিলে এবং লক্ষ করা যায় এতটাই নিন্মমানের পাথর ব্যবহার করছে যে হাত দিয়ে চাপ দিলে ভেঙ্গে যায়, একই সাথে কাদামিশ্রিত বালুর ও সত্যতা পাওয়া যায়। এ ব্যপারে উক্ত ভবনের ঠিকাদারের সাথে ফোনালাপে কথা বললে তিনি বলেন, আমি বেতাগী উপজেলার পি আই,ও এর সাথে কথা বলে কাজ করা শুরু করেছি এবং তিনি সকলের সামনে বলেছেন নির্মান সামগ্রী খুব ভালো ।তবে যেহেতু বছরের শেষের দিকে কেনা তাই বালুর ব্যাপারটা সত্য হতে পারে তারপরও যদি নির্মান সামগ্রী যথাযথ মানসম্পন্ন না হয় তবে পূণরায় পরিবর্তন করে কাজ করা হবে।
ঠিকাদারের দেওয়া বক্তব্যের উপর ভিত্তি করে বেতাগী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মর্কতা জি,এম ওয়ালিউর ইসলাম এর কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি আমার কর্তব্যনুযায়ী বি.আর.টি.সি এর পরিচালকের নিকট নির্মান সামগ্রীর গুনগত মান পরিক্ষা করার জন্য চিঠি দিয়েছি যাহার স্মারক নং- ৫১.০১.৪১০৪.০০০.৪১.০০০.১৮। একই সাথে তদরকীর ব্যাপারে বলেন আমি এক ব্যাক্তি দুই উপজেলার দায়িত্বে তাই অনেক সময় একটু অসুবিধা হয় তবে পর্যবেক্ষনের জন্য সর্বদা চেষ্টা করি ।৫০লক্ষ টাকা কাজ শুরুর পূর্বেই বিল প্রদান করা হয়েছ প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন বিল প্রদান করে ঢাকা থেকে প্রকল্প পরিচালক এব্যাপারে আমার কিছু জানা নেই,আমার হস্তক্ষেপ ও নেই।
এমন সকল অনিয়মের ব্যাপারে বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মর্কতা মোঃ রাজীব আহসানের সাথে আলাপ করলে তিনি বলেন, আমি সাংবাদিকদের কাছে এমন অনিয়মের তথ্য পেয়ে সরেজমিন পরিদর্শন করে ঠিকাদারের সাথে কথা বলে ভবনের কাজ বন্ধ করে দিয়েছি এবং নির্মান সামগ্রী টেষ্ট এর জন্য পাঠিয়েছি, টেষ্ট এর রির্পোট আসার পূর্ব প্রর্যন্ত কাজ বন্ধ থাকবে।

Sharing. . . .




More News Of This Category


সংবাদ শিরোনামঃ
  Icone বেতাগীতে ফাইলেরিয়া রোগের উপর প্রশিক্ষণ  Icone বেতাগীতে সন্ত্রাস-মাদকবিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ  Icone বেতাগী খাদ্যের নিরাপদতা শীর্ষক সেমিনার  Icone বেতাগীতে মুজিববর্ষে ১২ জন গৃহহীন পেলেন শেখ হাসিনার উপহার ঘর  Icone বেতাগীতে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস পালিত  Icone বেতাগী নাজেম আলী স্মৃতি ফাউন্ডেশনে পৌরসভার নয়া মেয়র ও কাউন্সিলরদের সংবধর্না  Icone বাংলাদেশ কমার্শিয়াল প্রকিউরমেন্ট ও সাপ্লাই-চেইন প্রফেশনালসে বার্ষিক ফ্যামিলি পিকনিক  Icone বেতাগীতে কৃষক মাঠ দিবস উদযাপন ও উন্নত জাতের বীজ বিতরণ  Icone বেতাগীতে কিশোরীদের স্যানিটারি প্যাড বিতরণ ও উদ্বুদ্ধকরণ সভা  Icone বেতাগীতে সড়ক ও বসতবাড়ি আঙিনায় বৃক্ষ সংরক্ষণ ক্যাম্পেইন